মেনু নির্বাচন করুন
খবর

আগৈলঝাড়ায় শ্বশুর-শাশুড়িকে নির্যাতনের দ্বায়ে পুত্রবধূর কারাদণ্ড দিল ইউ এন ও


বৃদ্ধ শ্বশুর-শাশুড়িকে খাবার না দেওয়া, ঘর থেকে বের করে দেওয়া ও মারধর করায় পুত্রবধূ মনিকা বৈরাগীকে এক মাসের কারাদণ্ড দিয়েছেন ভ্রাম্যমাণ আদালত। বরিশালের আগৈলঝাড়ার বাগধা ইউনিয়নের আস্কর গ্রামে মঙ্গলবার (২৯ অক্টোবর) রাতে ভ্রাম্যমাণ আদালতের বিচারক নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট ইউএনও বিপুল চন্দ্র দাস এ সাজা দেন। 

মনিকার শ্বশুর ভবসিন্ধু বৈরাগী বলেন, ‘ছয় মাস ধরে আমাকে ও আমার স্ত্রী বিমলা অধিকারীকে ঘরের বারান্দায় থাকতে দেয় মনিকা। আমাদের তিনবেলা খাবারও দেয় না। রান্নাঘরে রান্না করতে গেলে গালাগাল শুরু করে। এছাড়া আমাদের মারধরও করে। আমরা যতক্ষণ ঘরের বারান্দায় থাকি ততক্ষণ আমাদেরকে অকথ্য ভাষায় গালাগাল করতে থাকে। বিষয়টি আমার ছেলে খোকন জানলেও সে বউয়ের ওপর কোনও কথা বলতে পারে না। এভাবে দীর্ঘদিন ধরে চলছে। খাবার না দেওয়ায় শামুক সংগ্রহ করে তা বিক্রি করে যা পাই তা দিয়ে কোনোমতে আমাদের দু’জনের চলে যায়।’

তিনি আরও বলেন, ‘খাবার না দিলে আমার কোনও অভিযোগ নেই। কিন্তু মনিকা এখন আমাদের ঘর থেকে বের করতে উঠেপড়ে লেগেছে। এ কারণে মানসিক ও শারীরিক নির্যাতন চালিয়ে আসছে সে। আমরা এখন কোথায় যাবো? তাই লিখিতভাবে বিষয়টি ইউএনও স্যারকে জানাই।’

ছবি


ফাইল


প্রকাশনের তারিখ

২০১৯-১০-৩০

আর্কাইভ তারিখ

২০২০-০২-২০


Share with :

Facebook Twitter